• সুমন্ত চক্রবর্তী

কবিতা - ভয় কোর না




ভয় কোরোনা ভয় কোরোনা তোমায় আমি মারবো না,

অতো আড়াল রাখলে পরে জড়িয়ে ধরতে পারবো না।

গায়ে নানান শিং দেখে ভাই ভয় পেয়েছো কতোই না,

জানো না মোর ধরণ ধারণ, অন্য কিছুর মতোই না।


মনটা আমার বড্ড নরম, দাঁতে আমার শক্তি নেই, তোমার মুন্ডু চিবিয়ে খাবো এমন গভীর ভক্তি নেই।

স্পর্শ আমার সংবেদনার, ভালোবাসায় খাদটি নেই,

পর্ণকুটির, রাজপ্রাসাদে আমার কোনো বাদটি নেই।


সর্বঅঙ্গে প্রেমকে বিলাই, আমার গতি বিশ্বময়,

যতোই তোমরা তফাৎ রাখো, রাখছি খবর সবসময়।

লক ডাউনে লকলকে জিভ যদি বা একটু কষ্ট পায়, আর কদিন বদ্ধ থাকবে ঘরে, তোমরা এখন নিরুপায়।


অভয় দিচ্ছি বেরিয়ে পড়ো, থাকো নিজের মতোন সাবধানে,

আমিও থাবা উঁচিয়ে আছি রক্ত লোলুপ সন্ধানে।

তোমার সঙ্গে এখন আমার খু্ব গভীরের সখ্যতা, ফাঁকফোকরে সেঁধিয়ে যাওয়ার নিজস্ব সেই দক্ষতা।


করবে লড়াই নিজের মতোন তোমার নাছোড় ইচ্ছেরাই,

সরিয়ে আমায় রাখতে পারে, নইলে করবো যাচ্ছেতাই।

করোনা বলে দূর কোরোনা, বরং করো পাশবালিশ,

যে কটা দিন বাঁচতে পারি, কি ভাই স্যাঙাত কি বলিস !


মরণ কামড় তোমরাও তো হচ্ছ দিতে তৈরি সব, আমিও ক'দিন জারি রাখি, আমার মতন সে উৎসব !


(সুকুমারীয় ঢঙে মহামারীয় কাব্য)


নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮