• পার্থ সেন

সম্পাদকীয়







আমাদের সমস্ত পাঠক বন্ধুরা,

আশাকরি আপনারা সবাই ভালো আছেন। অবশেষে প্রতীক্ষার অবসান হল, আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে নীড়বাসনার আষাঢ়/জুন সংখ্যা প্রকাশিত হল। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। প্রথম থেকে শুরু করে এবারের সংখ্যা হল পঞ্চদশ সংখ্যা। দেরী হয়ে গেল আমাদের সংখ্যা প্রকাশ করতে। আশায় রইলাম পরের সংখ্যা ঠিক সময়ে প্রকাশ করতে পারব। এবারের সংখ্যার বিন্যাসে তেমন কোন পরিবর্তন হয়নি, তবে লেখার সংখ্যা একটু কমানো হয়েছে। বাকী লেখা আমাদের কাছে রইল। পরবর্তী সংখ্যায় সেগুলি প্রকাশিত হবে।



অন্যবারের মতো এবারের সংখ্যায়েও থাকছে দুটি ধারাবাহিক, কবিতা, ভিন্ন ধারার গল্প, প্রবন্ধ, রম্যরচনা, ভ্রমণ ভিত্তিক রচনা এবং অনুস্বর্গ বিভাগ। আর থাকছে সদ্য প্রয়াত কবি শঙ্খ ঘোষের উদ্দেশ্যে দুইটি স্মরণমূলক রচনা এবং সত্যজিত রায়ের শতবর্ষে তাঁর অমর সৃষ্টির ওপর একটি স্মরণমূলক রচনা। আশাকরি আপনাদের ভালো লাগবে। আমাদের সমস্ত লেখক, লেখিকা, পাঠক, পাঠিকা, চিত্রশিল্পী, সহযোগী এবং শুভানুধ্যায়ী সকল বন্ধুকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ এবং শুভেচ্ছা, আর ধন্যবাদ আমাদের সমস্ত পাঠক বন্ধুদের। আপনাদের সকলের ভালোবাসা, শুভকামনায় আমরা আজ ষষ্ঠ বর্ষে পদার্পণ করেছি। আপনারা আমাদের সঙ্গে থাকুন আর মূল্যবান মতামত জানিয়ে আমাদের সমৃদ্ধ করে তুলুন।



আমরা জানি করোনা’র নিদারুণ প্রকোপে আমরা সকলেই পর্যুদস্ত । অনেক প্রিয়, কাছের মানুষ চলে গেছেন। সেসব কথা মনে করিয়ে দিয়ে অযথা মনকে ভারাক্রান্ত করতে চাইনা। সেই সমস্ত মানুষ, গুণীজন, সাহিত্যিক, কবি, সঙ্গীতা শিল্পী, অভিনেতা, অভিনেত্রী, নিজেদের আত্মীয় পরিজন এই করোনা যুদ্ধে যাঁদের আমরা হারিয়েছি তাঁদের সকলের জন্য আমরা গভীর ভাবে শোকাহত। যাঁরা অসুস্থ তাঁদের নিরাময় কামনা করি।



আপনারা সবাই নিরাপদে থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। ভাইরাসের সঙ্গে মানবজাতির এই যে ঐতিহাসিক সংগ্রাম এ যুদ্ধে আমাদের জিততেই হবে, আর আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস এই যুদ্ধে আমুরা জিতবই। তাই একসাথে যুদ্ধের অঙ্গীকার নিয়ে, কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়কে স্মরণ করে মনে করতেই হল,


“মানুষ বড়ো কাঁদছে, তুমি মানুষ হয়ে পাশে দাঁড়াও

মানুষই ফাঁদ পাতছে, তুমি পাখীর মতো পাশে দাঁড়াও

মানুষ বড়ো একলা, তুমি তাহার পাশে এসে দাঁড়াও”



আন্তরিক শুভেচ্ছা জানবেন। ভালো থাকবেন।







নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮