• দীনেশ

দুইটি কবিতা

নির্যাস

এ কোনও মন ভোলানো কথা নয়,

নয় কচি কলাপাতায় বেড়ে দেয়া গরম ভাত-

ছুঁলেই আঙুলে রক্তিম আভা,

সবুজ কলাপাতা হয়ে যাবে সাদা-

এ তেমনও নয়।

হলুদ নরম বলের মত বাবলা ফুল চেয়ে আছে-

নিস্তরঙ্গ বুকের ওম পাবে কোনও একদিন,

কোনও এক নির্জন দুপুরে-

এ তেমন কোনও কল্পনা বিলাসও নয়।

এ কোনও নিকনো উঠোন নয়,

নয় বৃষ্টির পূর্বাভাস সোঁদা গন্ধী প্রথম বিছানায়-

আইকম বাইকম পাড়ি দেওয়া নিরুদ্দেশ বা

নদী জলে উলঙ্গ সমর্পণ,

এ তেমনও নয়।

তোমার জন্য, এ শুধু মাত্র

পাতা-ঝরা-পটে পড়ন্ত আলোর এক একটা আঁচড়-

করতল জুড়ে পার্থিব আলো আর-

বালি কাদা জল ছেঁকে ভালবাসার নির্যাস।

টয় ট্রেনের গন্ধ

বুকের থেকে খুলে ফেলি শীত,

সৌরীনি চা বাগানে ঘোর অন্ধকার,

ব্যস্ত হাতে কাপে ঢালি গরম কবিতা

অন্ধকার খোসা ছাড়িয়ে ছাড়িয়ে সূর্যছানা প্রসব করাই

গর্ভ যন্ত্রণা ধাক্কা খায়

কালো আকাশে ।

গিলোটিনে কেটে গেছে সব দিন

স্ক্রিনে স্ক্রিনে নিকষ কালো রাত

মেরুজল জলস্তর------

ডিনারের মেনুতে চায় ভূমি।

তোমার না লেখা মেল খুলে ভরে দিই উত্তাপ গ্রিন-তাপ

প্যাকেটে প্যাকেটে তাজা কবিতা

রুমাল খুলে টয় ট্রেনের গন্ধ নিই,

কাপ থেকে উঠে আসে তীব্র হুইসেল ।

অন্ধকারে পত পত মন্ত্র-পতাকা

মঝঝিম পথে ধ্রুবতারা কে বলি-----গুড নাইট ।

নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮