• দীনেশ

কবিতা – ঘট ও মান এবং কচু

ভুলের কুল্কুচি

জমে ওঠে

কমলা সময়

অনেকদিন পর

বালিতে পায়ের ছাপ

অনেকদিন পর

পাছার ছাপ

ছায়ার পাশে আর ও কেউ থাকে

হারিয়ে যাওয়া বিছানার

ধারে একঘেয়ে সুরে

কল পোঁতা গান

এক ঠ্যাঙ তুলে একবার মুতে দাও

শুধু একবার মুতে দাও

যে সব বিকেলে পতাকা তোলা হয় না

আমি গামছা খুলে ফেলি

লাফিং ক্লাব

বৃষ্টিতে ভেসে যায়

অন্ধকার ঠেলে

লণ্ঠন ভেঙে ফেলে আড়মোড়া

ভেজানো সন্ধ্যায়

চাপা ঝগড়া ঝুলে থাকে

একটা একটা সিঁড়ি

সিঁড়ি ভেঙ্গে, সিঁড়ি ভেঙ্গে

সিঁড়ি ভেঙ্গে

গুঁড়িয়ে দিই

প্রত্যেক বার

আর প্রত্যেক বার

ডানা মেলি, ঝাপ

এই পায়ের থেকে মোজা পালটে নিচ্ছি অন্য পায়ে

দমকলে ভরে ফেলছি লাফানো আগুন

একলা শালিকের পাশে

রেখে দিচ্ছি আরও একটা শালিক

চোখের আগুনে গলিয়ে নিচ্ছি

জমাট কথা

আশ্বস্ত ছড়ানো সকালে

বিকেলের আগেই উবে যায়।

নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮