• করবী ঘোষ

সম্পাদকের কলমে


আমাদের পত্রিকা নীড়বাসনার পক্ষ থেকে সকল পাঠক – পাঠিকাদের জানাই বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা। কেমন লাগছে আমাদের পত্রিকা? আপনাদের মতামত জানাতে ভুলবেন না যেন !

নীড়বাসনার এটি চতুর্থ সংখ্যা । আমাদের এবারের সংখ্যার থিম হল ‘ভ্রমণ’। ইতিহাসেও দেখি, সৃষ্টির শুরু থেকেই মানুষ ভ্রাম্যমাণ। প্রথমে বাসস্থান ও খাদ্য অন্বেষণের জন্য, পরে অজানাকে জানা এবং অদেখাকে দেখার উদ্দেশ্যে দেশান্তরে পাড়ি দেওয়া। চেনা জীবনের চার দেওয়ালের বাইরে হারিয়ে যাওয়াই তো ভ্রমণ। পকেটের জমা খরচ আর ছুটির অঙ্ক মিলিয়ে আমরা ছুট লাগাই কাঁধে ব্যাগ নিয়ে, অচেনার সন্ধানে, অজানার খোঁজে। কখনো বন্ধুদের সাথে নিয়ে কখনো বা পরিবারের সাথে, আবার কখনো না একা। আর ক্যামেরায় বেঁধে রাখা হয় সেই সকল মুহূর্ত গুলোকে – যা রয়ে যায় আমাদের চিরদিনের সম্পদ হয়ে অ্যালবামের পাতায়।

আমাদের দৈনন্দিন গতানুগতিক ক্লান্তিকর ও একঘেয়ে জীবনযাপন থেকে কিছুক্ষণের জন্য বা কিছুদিনের জন্য মুক্তির আশায় তো ভ্রমণ! ভ্রমণ আমাদের চেনায় নতুন নতুন মানুষকে, শেখায় তাদের ভাষা,সংস্কৃতি , শিল্প । শুধু অন্যকে জানতে নয়, নিজেকে নতুন করে খুঁজে পেতেও সেই নতুনের সন্ধানে বেরিয়ে পড়া! সঙ্গে সে ক্যামেরাই হোক বা মনের একতারাই হোক বা হলুদ হয়ে যাওয়া ডাইরি হোক। প্রকৃতি আর মানুষের নিবিড় সেই সান্নিধ্য আমরা নতুন করে নিজেকে আবার চিনতে পারি। আর এই শিক্ষা আমাদের স্বয়ং কবিগুরুর শেখানো। বিশ্ব-মানবতাবাদের জনক, সারা বিশ্ব কে ভালবাসতে তিনিই তো আমাদের শিখিয়েছিলেন। তাই “যত্র বিশ্বং ভবেত্যকনীড়ম” শান্তিনিকেতনের মন্ত্রে তাঁকে আর একবার মনে করা।

আর আমাদের বাঙালীদের মত ভ্রমণবিলাসী বা বলা যেতে পারে ভ্রমণপিপাসু সারা পৃথিবীতে বোধহয় আর কেউ নেই। ওই যে কথায় আছে না “পায়ের তলায় সর্ষে” – আমাদের বাঙালীদের হচ্ছে ঠিক তাই। আগে বাঙালীদের কাছে ভ্রমণ মানেই ছিল তীর্থভ্রমণ। কিন্তু এখন গ্রীষ্মের ছুটি, পুজোর ছুটি, শীতের ছুটি বা উইকেন্ডের ছুটি, যে ছুটিই হোক – ছুটি মানেই হচ্ছে বেরিয়ে পরা। সমুদ্রে, পাহাড়ে, জঙ্গলে কখনো বা দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশে। যার যেখানে পছন্দ । আমাদের সেই ভালো লাগার সেই ছোট ছোট মুহূর্ত গুলো কে সবার সাথে ভাগ করে নিতেই এবারে আমাদের সংখ্যা। পৃথিবীর নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা আমাদের প্রিয় মানুষজন যারা বেড়াতে ভালো বাসেন তাদের লেখা আর কথা আর স্মৃতির কথা রইল এবারে। সাথে ভিন্ন স্বাদের আরো কিছু লেখা রইল, আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। তাছাড়া সদ্য গ্রীষ্মের ছুটি শুরু হয়েছে স্কুল কলেজে, আমাদের সবার আবার বেড়িয়ে পড়ার সময় এসেছে।

নানা ব্যস্ততায় আমাদের এবারের প্রকাশনা একটু দেরী হয়ে গেল। নিজগুণে আমাদের ক্ষমা করবেন। পরিশেষে অত্যন্ত আনন্দের সাথে আমাদের প্রিয় পাঠক – পাঠিকাদের জানাতে চাই আমাদের প্রথম বর্ষপুরণ এই বৈশাখে। আমাদের সমস্ত লেখক, যারা অলংকরণ করেছেন তাঁদের সবাই কে আর একবার ধন্যবাদ। আর সবাই কে বলব আমাদের সঙ্গে যেমন আছেন তেমন করে থাকবেন আমাদের সাথে সবসময়ে। সবার খুব ভাল কাটুক নতুন বছর, সবাই ভালো থাকবেন।

নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮