• দীনেশ

কবিতাগুচ্ছ - দীনেশ

কচ্ছপের ডানা

বোর্ড পিনে ঝোলানো ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট ফ্রেম আবছা মুখ আবছা বাতাস ডানা ওলা কচ্ছপ ফ্রেম ছেড়ে উড়ে যায় রক্তে ভেসে যাচ্ছে ছটফটে ফলুই মাছ

দুপুর ঘুঁটে শুকনো হয় রোদে আর হাঁটু পর্যন্ত লম্বা চুল আর ঝোড়ো পঁচিশে বৈশাখ ছোট ছাতার রঙ্গিন ডাঁপ

কাঠের বিছানায় মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, বিহার হাতের মুঠোতে কাঁসার ঘণ্টা ছুটির ঘণ্টা

দোয়াত কঞ্চি কলম শ্রী শ্রী হরি আর গড ইজ গুড বড়শির কাঁটা তারাদের ভিড়ে ঢাকা কালো অন্ধকার লাল নীল আব্যাকাস

বিকেলের ব্লটিং শুষে নেয় মন কেমনের রোদ একটা সিঁড়ি ঢাল বেয়ে নেমে যায়

কিছুতেই নামতে পারি না ।

অমুক তমুক এবং সন্ত্রাস

দু একটা বিকেল বাঁচিয়েছি

বৃষ্টি ছোঁবো বলে-------

বর্ষা আসার আগে সন্ত্রাস এসে

ভিজিয়ে দেয় রক্তে, আতঙ্কে

আর বোবা কান্নার ঢেউয়ে ।

বালিতট সাজানো সন্ত্রাস সন্ত্রাস

ঢেউ চেটে নিচ্ছে রক্ত, মজ্জা,

সভ্যতার শেষ বীজধান

বাতাসে উড়ছে আদিম পতাকা

তুমি কোন জিন মগজে পুষেছ ?

পুড়িয়েছ ত্রিকাল উত্তরীয়

ভ্রূণ ভেজে প্রাতরাশ

শিশির মাখনি বুকের বোতামে ?

তবু

বয়ে চলে টিক টিক

কার হাত শক্ত হয়

কার লিঙ্গে জাগ্রত ধ্বংস বিন্দু ?

এই

চাদর জাল ছিল প্রাণ গন্ধ হীন

যেমন ঢুকেছে জল নদী নালা যোনি পথ বেয়ে

ঢালু পথে পাবে ছাই , ধু ধু পোড়া দিনকাল

অস্ত্র ছোঁয়া আঙ্গুল নিস পিস

নিস নিস

প্রাণ জান পিপাসা

মগজে মগজে চুমুকে রক্তের ম্যাগমা

কোষে কোষে

অক্টোপাস খিদে

যত খিদে যত যৌন ছেঁড়া ।

এসো ডার্ক রুমে

দেখো

শুধু নেগেটিভ আর নেগেটিভ

আর কিছু নেই

আর কিচ্ছু নেই।

সিক কাবাব ও পাথুরে খচ্চর

পাথুরে লোকটা একদিন কালো পরদা মেখে

মাদারি খেলার সর্ষের মধ্যে ঢুকে গেল

মাটি মাখা রোদ সকালবেলার জলে জাগ্লিং

মাদারির খেলা ।

ভেড়া খচ্চর গাধা

আমিষ রেস্তোরাঁয়

বাঁধা রাখি –নিজের নিজের ঘাস পাতা অ্যাপেন্ডিক্স

অণ্ডকোষ ভাই বউ- তেজপাতা গন্ধ ।

খেলায় ভাগ তো নিলাম ---------

ধান দুব্বো সরিয়ে রাখো

লুডো পাশা চুপ থাক

এসো শুধু কাটাকাটি খেলি

হাতে নাও ছুরি তলোয়ার বন্দুক ।

মগজে সান দাও হিংসা দাঁত নখ করাত

সান দাও অতৃপ্ত যৌনতা

আমাকে গেঁথেছ যৌন তাড়না দিয়ে

জঙ্গল মোহনায় পুঁতেছ শ্বাসমূল

কার ?

সিকে গাঁথা যৌন কোষ

দিন রাত ঝালসাই

ঝালসাই সরাইখানার গনগনে আঁচে ।

হাতে নাও ছুরি তলোয়ার বন্দুক

শুধু কাটাকাটি খেলি ।

নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮