• পারমিতা ভট্টাচার্য

অণু গল্প - প্রতিশোধ



কাজটা হবার আগে একটু ভয়ভয় করছিল, কিন্তু এখন বেশ হালকা লাগছে। জ্যোৎস্নায় ছমছমে চারপাশ, তার মধ্যে দিয়ে প্রায় উড়ে চলেছি।দড়িটা রইলো, যাকগে। এখন মানুষটাকে চাই!! অসুবিধা নেই।ছাদ, দেওয়াল―যা হোক দিয়ে ঢুকবো, ঘাড়টা মটকে দিতে পারলেই..


মিথ্যে সই করিয়ে জমিজমা নিলো, বউটাকে অবধি ....ঝুলে পড়া ছাড়া আমার উপায় কি ছিল !


"ওইতো ঘুমোচ্ছে", আমার একমাস আগে ঝুলে পড়া বউ বলে,"মটকাও, ব্যাটার ঘাড়",


চোখ খুলে আমাদের দেখেই, হা হা, পানুঘোষ ভয়ে একবারে,হি হি..


এইবার ,এইবার...ব্যস..

.

"চ বউ ,চাঁদনী রাতে উড়ে বেড়াই, প্রতিশোধ নিয়েছি",


বলতে বলতেই বাক্য-লোপ। সদ্য ঘাড় মটকানো লাশ থেকে তেড়ে আসছে পানুঘোষ,! আগুনে চাউনি ঠিক মানুষ-কালের মতোই..


(নীড়বাসনা আয়োজিত ভৌতিক/ অতীন্দ্রিয় ইভেন্টে 'অণুগল্প' বিভাগে এই গল্পটি প্রথম স্থান অধিকার করে। )


নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮