• সৌরভ ব্যানার্জী

দেবাদিদেব মহাদেব



( বিধিসম্মত সতর্কীকরণ :: এই গল্প কাউকে আঘাত দেওয়ার অভিপ্রায়ে নয় । প্রাপ্তমনস্ক মানুষ গল্পের হিউমার টি উপভোগ করবেন বলেই আমার ধারনা । )


কৈলাসে তোড়জোড় চলছে আর বেশি দিন বাকি নেই পুজোর , মা দুর্গা বাপের বাড়ি আসবেন ।শিব বেজায় চিন্তিত , দিনকাল ভাল না । এত গুলো ছেলে মেয়ে নিয়ে উমা যাবেন বাপের বাড়ি ।রাস্তা ঘাটে কখন যে কি হয় ? এমনিতে এই সময় টা শিবের বিন্দাস কাটে... মানা করার কেউ নাই । গাঁজা ... ভাঙ ... সিদ্ধি তে একদম উল্লাল্লা ব্যাপার । শুধু উমা না ফেরা পর্যন্ত্য বড্ড চিন্তা হয় ইদানিং ... নেশাটা ও ঠিক তুরীয় স্তরে পৌঁছায় না । তার ওপরে পুজো টাও এবার সেই রকম জমবে বলে মনে হচ্ছে না প্রতিবছর এই সময় বাপের বাড়ি যাওয়ার যে কি আছে উমার ... মহাদেব আজকেও খুঁজে পান না । আবার সাহস করে মা অন্নপূর্ণা কে জিজ্ঞেস করতেও পারেন না ! ওই ইয়ে মানে... যে ভয় সবাই পায় তাই আর কি ! যাইহোক এইবারে শিব ঠিক করেছেন যে তিনি নিজে এসে আগে ভাগে বেশ করে তদন্ত করে যাবেন । তারপরে বউ আর ছেলে মেয়েদের পুজো দেখতে পাঠাবেন । যেমন ভাবা তেমন কাজ শিব এসে পৌঁছে গেলেন ধরাধামে ... এদিক ওদিক ঘোরাঘুরি করার আগে নিজের বাঘছাল টাকে মন্ত্র পড়ে একটা আলখাল্লা বানিয়ে ফেললেন । বেশ কিছুটা যাওয়ার পরে দেখা গেল একজায়গায় গোল করে বসে কিছু মানুষ গঞ্জিকা সেবন করছেন । বহুক্ষণ পরে শিবের গাঁজার নেশা টা বেশ চাগিয়ে উঠল । শিব সেই ঠেকের দিকে এগিয়ে গেলেন এবং দিব্যি জুড়ে গেলেন । গাঁজার কলকে ঘুরে শিবের কাছে আসতে না আসতেই শিব দিলেন এক জব্বর টান ... গাঁজার কলকে গেল ফেটে । ঠেকে ধন্য ধন্য পড়ে গেল ..


- বলি কাকার কোথা থেকে আগমন হচ্ছে ?


শিব চুপ ... দিনকাল ভাল না , আসল পরিচয় দিয়ে ফেললে লোকজন আটকে রেখে দিতে পারে । এই নেই ... সেই নেই ... সমস্যা দুর করুন । নেশাটা মাঠে মারা যাবে । যাইহোক আবার নতুন কলকে এল ...আবার শিব টান মারলেন ...আবার কলকে ফেটে গেল । এবারে দু চার জন সোজা শিবের পায়ে ...ডাইভ !


- কাকা ... আপনি গুরুদেব ... পায়ের ধুলো দিন ওস্তাদ !ওস্তাদের নাম টা না জানলে তো ... আর চলছে না দেখতে পাচ্ছি ।


শিব তবুও চুপ । কোন কথা বলা যাবে না । দেশের অবস্থা মোটেই ভাল না ... আসার সময় মা দুর্গা কানে কামড়ে বলে দিয়েছেন ।


আবার কলকে সাজা হল । আবার শিব টানলেন এবং আবার কলকে ফেটে গেল । ব্যাস ... ঠেকের সবাই এইবারে শিবের পায়ে এসে গড়াগড়ি খেতে লাগলেন ।


- ওস্তাদ আপনি গুরুদেব । আপনি কাকার কাকা । আপনি মহাকাকা । আপনি মহাগুরু ওস্তাদ । আপনি আপনার নাম বলুন ... কাকা । আমরা সবাই আপনার অযোগ্য শিষ্য । এতটা বাবার প্রসাদ টেনেও আপনি স্টিল কুল কাকা .. আপনার নাম টা বলুন গুরুদেব ।


পরপর তিনটি কলকে ফাটানো মানুষের কলজের কাজ না । দেবাদিদেব মহাদেব বলে তিনি টিকে গেছিলেন কিন্তু তাঁর তখন হাল্কা হলেও ধুমকি এসেছে । এইবারে তিনি লঘু স্বরে বলেই ফেললেন ...


- আমি শিব শম্ভু ।


- অ্যাঁ ... কাকা কি বললেন ... আর একবার বলুন ।


শিব চোখ দুটোকে আধবোজা করে বললেন ...


- আমি দেবাদিদেব ... মহাদেব ।।


- এই রে কাকা ... এইবারে তোমার নেশা ধরে গেছে ... হাঃ হাঃ হাঃ !!



নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮