• ময়না চক্রবর্ত্তী

কবিতা - তুল্য মূল্য

একবুক সরলতা ও ভালোবাসা কে সঙ্গী করে এসেছিলাম এই মায়া-নগরীতে । আশা ছিল ,টিকে থাকার লড়াইয়ে ঠিক থেকে যাবো । এগিয়ে চলবো আলোর গতিকে সাক্ষী করে । কাজের ফাঁকে খুঁজে পাবো একান্ত ভালোবাসার সাথী কে ।


এলে তুমি এক সোনালী সন্ধ্যায় , সময়ের সাথে সাথে ইচ্ছেগুলোকে করে দিলে গোলাপি । আমার পাশে বসলে , হাতে রাখলে হাত , কাঁধে রাখলে মাথা । হাজারো চোখের-পরশ ছুঁয়ে গেছে আমাদের । মান-অভিমান -খুনসুটি.... সময়ের তরঙ্গে বেড়েছেই খালি ।


একদিন বাড়িয়ে দিলে তোমার অনামিকা .... মন-প্রাণ দিয়ে খুঁজে-বেছে এনেছিলাম কনক-অঙ্গুরি । তোমার গর্বিত-গ্রীবা নিয়ে ফিরিয়ে দিলে আমাকে । আমার অন্তরের উষ্ণতার কোনো মূল্যই দিলে না .... ঠিক সেই মুহূর্তে । মূল্যহীন হলো আমার ভালোবাসা .... বড় বেমানান লাগছিল নিজেকে এই নগরীতে ।


সম্পর্ক বাঁচে উষ্ণতায় কিন্তু উদাসীনতার চাপে তা ঝলসে গেলো । তোমার গহীন মনের কোণে নিরুত্তাপের ছোঁয়া , হিমশীতল ব্যবহার , আর একগুচ্ছ অবজ্ঞা.... ভালোবাসা ভেঙে গেলো নিঃশব্দে । হলো না কোনো আওয়াজ , রইলো না কোনো ভাঙা টুকরোর নিশান । কার্বনের মধ্যে জন্ম রত্ন ভেঙে দিলো স্বর্ণসম ভালোবাসা কে ।


না , মিলন হবে না আর কোনদিন । তোমার মনে আমার জন্য নেই কোনো চাওয়া , প্রাণে নেই উদ্বেলতা ,আমার স্পর্শের অনুভূতি ও নিমেষে উধাও কর্পূরের মতো ...... দুরন্ত গতিতে প্রেম হলো প্রাগৈতিহাসিক । বুঝলাম , প্রেমিক হওয়া এক কঠিন সংগ্রাম ।


"ভালোবাসায় সংগ্রাম থাকে না , থাকে স্বচ্ছতা-সখ্যতা-উষ্ণতা।"

নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮