• ঋষি

কবিতা - প্রেমিক ও ঈশ্বরের কথোপকথন

প্রেমিক : জানেন মশাই যন্ত্রণা কাকে বলে ?

যখন বৃষ্টি পরে কিংবা পরে না,সবসময় ,সারাটাবেলা আকাশের মেঘে থেকে যায় তার মুখটা।

.

ঈশ্বর : সমস্ত সৃষ্টির আঁধারে আমি পরম ঈশ্বর ,তোমার ভাবনারা সব সংকীর্ণ ছোকরা ,এই যে আকাশ ,মেঘ ,বৃষ্টি,রৌদ্র সমস্তটাই আসলে প্রেম ,আর তুমি শুধু এক নারী শরীরে খোঁজো প্রেম।

.

প্রেমিক : আপনি মশাই হাসবেন না এই ভাবে ,আপনি মহান পরমপিতা হতে পারেন ,কিন্তু আপনি কি বোঝেন প্রেমের মানে ?

আর কে বললে সে শুধু নারী শরীর ,একবার ভাবুন তো আপনাকে যারা পুজো করে তারা কি আপনাকে শরীর ভাবে শুধু।

.

ঈশ্বর : তোমার অস্পর্ধার শেষ নেই ছোকরা ,কার সাথে কার তুলনা। তুমি কি ভাব প্রেম কি শুধু নারী ,পুরুষের , এই যে বড়ো গোলক এর সবটাই প্রেমের কারণে বেঁচে ,আমার কারণে বেঁচে।

.

প্রেমিক :আচ্ছা একবার ভাবুন মহান পিতা ,আপনি এই সৃষ্টির জন্য কি করতে পারেন ?

এই যে চারিদিকে ধর্ষণ ,হত্যা ,রাজনীতির চাপানউতোর আপনি কি এগুলো বদলাতে পারেন। আমাকে দেখুন আমি তার জন্য এই শহরটাকে এক খাবলায় চিবিয়ে খেতে পারি ,সিগারেটের ধোঁয়ায় এইভাবে নিজেকে পোড়াতে পারি তাকে ভেবে ,তাকে না ছুঁয়েও তাকে ভালোবাসতে পারি ,বাঁচতে পারি তার জন্যে ,হ্যাঁ মরতেও পারি

আপনি কি পারেন মশাই ?

.

ঈশ্বর : তুমি নিতান্ত মূর্খ ,এই যে তোমার ভাবনা ,এই যে তোমার কল্পনা সবখানেই তো আমি আছি। তোমরা মানুষরা নিজেদের স্বার্থে কিভাবে তোমাদের সময় কাটাবে ,সে ধ্বংস না সৃষ্টি ,সবটাই তোমাদের হাতে।

আর আমার কথা বলছো আমি তো শুধু দর্শক ,আমি তোমাদের সৃষ্টি করতে ,সৃষ্টি করতে পৃথিবীর ,আর সৃষ্টির পর আমি তোমাদের মতো কিছু বদলাতে চাই না।

আমি বাঁচি তোমাদের মাঝখানে ,তোমার মাঝখানে ,

সে তুমি তাকে প্রেম বলো

কিংবা ধ্বংস।

লেখক পরিচিতি - ঋষির জন্ম এই সাহিত্যের শহর কলকাতায়। ঋষির আসল নাম সেনজিৎ বোস, ঋষি নামেই তার লেখালিখি। আর ছোটবেলা থেকে লেখালিখি শুরু। আজ অবধি বহু দেশি ও প্রতিবেশী রাষ্ট্রের পত্রিকায় তার লেখা প্রকাশিত। ওনার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ : "ফেলে আসা শহর" ( ২০১১),"স্পর্শ"(২০১৩) , " একমুঠো আলো "(২০১৫)।

নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮