• প্রান্তিক গুহ রায়

কবিতা - বন্ধুরা ফিরছে এবং ঘুম আসুক

বন্ধুরা ফিরছে


বন্ধুরা নাকি ফিরছে , ছিল কোথাও ভিনদেশী যে যেমন যেখানে ফিরছে , মনে মনে .. আবেগে , সেই পুরনো সাঁকোটাই দরকারি বেশি


হটাত মধুপুর , গিরিডি, পুরনো বাংলোয় কাটানো কিছু দিন পঞ্চাশ ছুঁই দিন, বলে যায় , এক গীটারের কাছে শতাব্দী ঋণ

এক মাথা ঝাঁকা চুল, কাঁধে ব্যাগ ...শুনেছি এখন ঘোর সংসারী


বৃষ্টি তো পড়ে যায় , উঠোনেতে বানভাসি .. বন্ধু কি ভুলে গেছে এমন বৃষ্টিতে ভেজা যায় আবহাওয়া অফিস বলেছে ...এই সন্ধ্যেটা আবগারি

পাতা নাকি ঝড়ে যায় ...সিয়াটেল থেকে উমা দাস লেন।


ঘুমোতেই পারি ...জাগাবে এখনো সেই আট টার সাইরেন

ভাগশেষে একই মুখ , কিছু চুল দাঁড়ি সাদা পাকা... আসলে চারটে বছর..বাদ দিলে ...বিগ জিরো ... এও একভাবে বেঁচে থাকা

বন্ধুরা নাকি ফিরছে , ছিল কোথাও ভিনদেশী।






ঘুম আসুক


নিবিড় একটা নিশ্চিন্ত ঘুম আসুক মনে হয় কয়েক শতাব্দী নিদ্রাহীন আছো তুমি

চোখের পাতারা কতদিন বেইমানি করে গেছে ... রাত জাগা পাখিদের মত দু ডানায় অন্ধকার .. উড়ে গেছো শুক্ল পক্ষের খোঁজে ... নদী মাঠ ছুঁয়ে ..শিশিরে ভেজা আবেশে .... রাতের গভীরতায় , দেউলিয়া ঘোষনা করেছ জানি পাওনি তাও পোতাশ্রয় , সাময়িক বিরতি

ঘুম ছুঁয়েছে তোমার চোখ একেবারে শেষ রাতে স্বপ্নের ভিতর ভ্রুণ থেকে শিশু ...টলোমলে পায়ে গ্রেভ ইয়ার্ডের দিকে ফড়িং এর খোঁজে গেছে ... হলদে পাতা ঝরে গেছে ঘুমের ভিতর ... চিঠি পেয়েছ অবচেতনে , মঞ্জুর হয়েছে ছুটি

নিবিড় একটা নিশ্চিন্ত ঘুম আসুক মনে হয় কয়েক শতাব্দী নিদ্রাহীন আছো তুমি

যারা কবিতা ভালবাসে তাদের জন্য।





কবি পরিচিতি - প্রান্তিক গুহ রায় পেশায় সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। মফঃস্বল শহরে শৈশব , কৈশোরকাল কেটেছে তারপর চার বছর বি ই কলেজের আবাসিক জীবন। কর্মসূত্রে দীর্ঘদিন নিজের শহরের বাইরে বাংলা সাহিত্য , কবিতা , প্রবন্ধের একান্ত অনুরাগী কাজের ফাঁকে কলম ধরা , তবে নিয়মিত নয়



নীড়বাসনা আষাঢ় ১৪২৮